দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ২৬৪ মৃত্যু, শনাক্ত ১১ হাজার ১৬৪ জন

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ২৬৪ জন প্রাণ হারিয়েছেন। নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১১ হাজার ১৬৪ জন। আগের দিনের তুলনায় দেশে মৃত্যু বেড়েছে ও শনাক্ত রোগী কিছুটা কমেছে। আজ মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে চলতি মাসের ৫ তারিখ জানানো হয়, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আগের ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ২৬৪ জন, যা একদিনে মৃতের হিসেবে এযাবৎকালের সর্বোচ্চ ছিল। পরে গত ৬ তারিখ জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় ২৪৮ জনের মৃত্যুর খবর। ৭ তারিখ বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় ২৬১ জনের প্রাণহানির কথা। রবিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে জানানো হলো ২৪১ মৃত্যুর খবর। সোমবার জানানো হয় ২৪৫ মৃত্যুর খবর। আর আজ বলছে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২৬৪ জন মারা গেছেন। দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত মোট মারা গেলেন ২৩ হাজার ১৬১ জন।

এদিকে, করোনা আক্রান্তের সংখ্যা গতকালের তুলনায় কিছুটা কমেছে। শনিবার নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছিল ৮ হাজার ১৩৬ জন। রবিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, ১০ হাজার ২৯৯ জন আক্রান্তের খবর। সোমবার জানানো হয় ১১ হাজার ৪৬৩ জনের আক্রান্তের খবর। আর মঙ্গলবার জানানো হয় ১১ হাজার ১৬৪ জনের আক্রান্তের খবর।

মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন ১১ হাজার ১৬৪ জন। তাদের নিয়ে দেশে সরকারি হিসাবে এখন পর্যন্ত শনাক্ত হলেন ১৩ লাখ ৭৬ হাজার ৩২২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ১৪ হাজার ৯০৩ জন। তাদের নিয়ে দেশে করোনা থেকে মোট সুস্থ হলেন ১২ লাখ ৩৪ হাজার ৭৬২ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ৪৮ হাজার ৪১৬টি, আর ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৪৭ হাজার ৪২৪টি। দেশে এখন পর্যন্ত করোনার মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো ৮২ লাখ ১২ হাজার ৪১টি। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৬০ লাখ ৬৪ হাজার ১৫১টি এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ২১ লাখ ৪৭ হাজার ৮৯০টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২৩ দশমিক ৫৪ শতাংশ, আর এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৭৬ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৯ দশমিক ৭১ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুহার এক দশমিক ৬৮ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২৬৪ জনের মধ্যে পুরুষ ১৫৪ জন, আর নারী ১১০ জন। তাদের নিয়ে দেশে মোট পুরুষ মারা গেলেন ১৫ হাজার ৩৮৪ জন এবং নারী মারা গেলেন সাত হাজার ৭৭৭ জন।