২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলায় আওয়ামী লীগ জড়িত : রিজভী

১৭ আগস্টের সিরিজ বোমা হামলা ও ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলার সঙ্গে বিএনপি নয় বরং আওয়ামী লীগই জড়িত বলে মন্তব্য করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘তৎকালীন বিএনপি সরকারকে বেকায়দায় ফেলতেই আওয়ামী লীগ এসব হামলা করেছিল। শুধু তাই নয় পিলখানায় বিডিআরের তরুণ অফিসারদের হত্যায়ও আওয়ামী লীগকে দায় নিতে হবে। ওই হত্যাকাণ্ডেরও একদিন বিচার হবে।’

বুধবার (১৮ আগস্ট) সকালে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জন্মদিন উপলক্ষে কেরানীগঞ্জে দোয়া ও আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রীর দেওয়া বক্তব্যের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, চক্রান্ত করে ১৫ আগস্টের ঘটনায় জিয়াউর রহমানকে সামনে আনছে সরকার। কিন্তু তাতে লাভ হবে না। তিনি মহান স্বাধীনতার ঘোষক ও বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা। তাকে নিয়ে আমরা লজ্জিত হবো না বরং তাকে নিয়ে আমরা গর্বিত। দেশবাসীও জিয়াউর রহমানকে নিয়ে গর্ববোধ করে।

একটি জাতীয় দৈনিকে পরিকল্পিতভাবে প্রবন্ধ লিখছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ৪০ বছর পর ‘আনট্র্যাঙ্কুয়েল রিকালেকশন’ বইয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে কেন এ প্রবন্ধ লেখা হচ্ছে?  মানুষের তা বুঝতে অসুবিধা হয় না। এটি গভীর চক্রান্তেরই অংশ।

অনুষ্ঠানে প্রধানবক্তা হিসেবে ডাকসুর সাবেক জিএস বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন বলেন, বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী খালেদা জিয়া। তিনি নির্বাচনে কোনোদিন পরাজিত হননি। তাকে মিথ্যা মামলায় সাজা দেওয়া হয়েছে। তিনি বর্তমানে গৃহবন্দী, সুচিকিৎসা পাচ্ছেন না। তাই নেত্রীকে মুক্ত করতে ও গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে আন্দোলনের বিকল্প নেই।

কেরানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপি আয়োজিত দোয়া ও আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নিপুন রায় চৌধুরী।

অনু্ষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, সাবেক এমপি ও বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য বিলকিস ইসলাম, নাজিম উদ্দীন মাস্টার, জেলা বিএনপির নেতা জয়নাল আবেদিন বাবুল, মোসাদ্দেদ আলী বায়ুসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।