সু চির বিরুদ্ধে স্বর্ণ ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ

মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চির বিরুদ্ধে অবৈধভাবে ছয় লাখ ডলার ও ১১ কেজি স্বর্ণ আত্মসাৎ করার অভিযোগ তুলেছে জান্তা সরকার। আজ বৃহস্পতিবার দেশটির সরকারি গণমাধ্যমের খবরে এই তথ্য জানানো হয়। খবর বিবিসির।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, গত ১ ফেব্রুয়ারি অভ্যুত্থানের পর থেকেই সু চি গৃহবন্দী রয়েছেন। তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় গোপন আইনভঙ্গসহ বেশ কয়েকটি অভিযোগ রয়েছে। এবার তার বিরুদ্ধে ইয়াঙ্গুনের সাবেক আঞ্চলিক মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে ছয় লাখ ডলার ও ১১ কেজি স্বর্ণ ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ তুলেছে সরকার।

মিয়ানমারের সরকারি পত্রিকা গ্লোবাল নিউ লাইট অব মিয়ানমার বলছে, সু চি তার ক্ষমতার অপব্যবহার করে দুর্নীতি করেছেন। দুর্নীতি দমন কমিশনের কাছে এ–সংক্রান্ত প্রমাণ রয়েছে বলেও ওই পত্রিকার খবরে জানানো হয়েছে। এসব কারণে দুর্নীতি দমন আইনের ৫৫ ধারায় সু চির বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।

এদিকে সু চির আইনজীবী খিন মং জ বলেছেন, রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা লঙ্ঘন ও দুর্নীতির অভিযোগে সু চিকে দীর্ঘ মেয়াদে কারাদণ্ড ভোগ করতে হতে পারে। সু চিকে রাজনীতি থেকে দূরে রাখতে ও তার ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে তার বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ আনা হচ্ছে।