সন্তান জন্মের এক বছর পর সেই বান্ধবীকেই বিয়ে করছেন বরিস জনসন

গত বছর প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। শারীরিক অবস্থায় খারাপ হওয়ায় হাসপাতালেও ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। এমতাবস্থায় সুখবরও দেন জনসন। গত বছরের এপ্রিলের শেষ দিকে তিনি ঘোষণা দেন তার বান্ধবী ক্যারি সিমন্ডস একজন ছেলে শিশুর জন্ম দিয়েছেন। ওই সন্তানের নাম রাখা হয় উইলফ্রেড লরি নিকোলাস।

সন্তান জন্মের এক বছর পর সেই বান্ধবীকেই বিয়ে করছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।

জানা গেছে, বান্ধবী ক্যারি সিমন্ডসকে আগামী গ্রীষ্মেই বিয়ে করতে যাচ্ছেন জনসন। খবর দ্য সান ও রয়টার্সের।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বরিস ও ক্যারি ইতিমধ্যে তাদের পরিবার-স্বজন-বন্ধুদের বিয়ের আমন্ত্রণপত্র পাঠিয়েছেন। আমন্ত্রণপত্রে বিয়ের তারিখ হিসেবে ২০২২ সালের ৩০ জুলাইয়ের উল্লেখ রয়েছে।

জনসন-ক্যারি জুটির বিয়ের স্থানসহ বিস্তারিত তথ্য গোপন রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে দ্য সান।

২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে জনসন ও ক্যারি জানান, তারা বিয়ে করার জন্য অঙ্গীকারবদ্ধ হয়েছেন। তাদের সন্তান আসছে।

২০১৯ সালে বরিস যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী হন। প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে বরিস জনসন ও ক্যারি সিমন্ডস ডাউনিং স্ট্রিটে বসবাস করে আসছেন।

৫৬ বছর বয়সী বরিস ও ৩৩ বছর বয়সী ক্যারি ডাউনিং স্ট্রিটে বসবাসকারী প্রথম অবিবাহিত যুগল।

বরিস জনসনের আগের স্ত্রীর নাম ম্যারিনা হোয়েলার। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে তারা আলাদা হয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন। ওই সংসারে জনসনের চারটি সন্তান রয়েছে।

হোয়েলারের আগে আরেক নারীকে বিয়ে করেছিলেন বরিস জনসন। সে হিসেবে ক্যারি হবেন তার তৃতীয় স্ত্রী।