শিমুলিয়া ঘাটে জনসমুদ্র

মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাট জনসমুদ্রে পরিণত হয়েছে। নিয়মিত ফেরি চলাচলের ঘোষণায় মঙ্গলবার দুপুর হতে ঘাটে মানুষের চাপ বাড়তে থাকে। গভীর রাত পর্যন্ত ঘাটে ঘরমুখো মানুষের বাড়তি চাপ ছিলো। যখনি কোন ফেরি আসছে ফেরিতে উঠার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়ছে মানুষ।

আজ বুধবার সকাল হতে শিমুলিয়া ঘাট জনসমুদ্রে পরিণত হয়।

বিগত কয়েকদিনের ন্যায় আজও শিমুলিয়া ঘাটের প্রবেশ মুখে ব্যারিকেট দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে আইনশৃংখলা বাহিনী। প্রায় ১ কিলোমিটার পায়ে হেটে যাত্রীদের ঘাটে প্রবেশ করতে হচ্ছে। পরিবার পরিজন ও মালপত্র নিয়ে পায়ে হেটে ঘাটে পৌঁছাতে হাফিয়ে উঠছে যাত্রীরা। ঘাটে এসে যাত্রী চাপে ফেরিতে উঠতে যুদ্ধ করতে হচ্ছে যাত্রীদের।

শিমুলিয়া ঘাটের বিআইডব্লিউটিসির সহকারি উপমহাব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম বলেন, ঘাটে যাত্রীদের অতিরিক্ত চাপ রয়েছে। বাংলাবাজার ঘাট হতে যখনি কোন ফেরি আসছে তখনি হুমড়ি খেয়ে পড়ছে যাত্রীরা। যাত্রীদের চাপে বাংলাবাজার ঘাট হতে ছেড়ে আসা ফেরিগুলোর যানবাহন ঠিকমতো নামাতে পারছে না। ফলে যানবাহন নামিয়ে ফেরি ছাড়তে বিলম্ব হচ্ছে।

ঘাটে ফেরি সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। ১৩-১৪ টি ফেরি চলছে। আজ বুধবার সকাল থেকে এ ঘাটে কয়েক হাজার যাত্রী জড়ো হয়েছে। যাত্রীদের নিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে ঘাটের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিদের। একটি ফেরি ঘাটে বেড়ানো হচ্ছে, যাত্রীরা সেখানে চেপে বসছেন। কোনোভাবেই তাদের ফেরি থেকে নামানো যাচ্ছে না।