লাদাখের বেশ কিছু জায়গা থেকে পিছু হটল চিনের সেনা

নয়া দিল্লীঃ ভারত (India) আর চিন (China) পূর্ব লাদাখের (ladakh) অনেক জায়গায় নিজেদের সেনা মোতায়েন করেছিল। সরকারি সুত্র অনুযায়ী, চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি গালওয়ান উপত্যকা আর হট স্প্রিং এরিয়া থেকে নিজেদের সেনা আর যুদ্ধ বাহন গুলোকে আড়াই কিমি পিছনে সরিয়ে নিয়েছে। ভারতও নিজেদের সেনা পিছনে হটিয়েছে চিনের পদক্ষেপের পর।

দুই দেশের বিবাদ গত মাস থেকে শুরু হয়েছিল। চিন পূর্ব লাদাখে বাস্তবিক নিয়ন্ত্রণ রেখার পাশে সেনার মোতেয়ন করা শুরু করেছিল। এরপর পেংইয়াং ঝিল আর গালওয়ান ঘাঁটিতে ভারত আর চিনের মধ্যে উত্তেজনা বেড়েই চলেছিল। চিনের সেনা বিতর্কিত অঞ্চলে বেশ কয়েকবার ভারতীয় সেনার মুখোমুখিও হয়।

বিতর্ক কমাতে দুই দেশের সেনার মধ্যে কথাবার্তা চলছিল। প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ভারতীয় সেনার কম্যান্ডাররা চুশিলে চিনের সাথে আগামী কিছুদিনে আবারও বৈঠকে বসতে চলেছে। সংবাদ সংস্থা এএনআই অনুযায়ী, ভারতীয় সেনা দলের সদস্য চুশুলে উপস্থিত আছেন আর আগামী কিছুদিনের মধ্যে চিনের সাথে বৈঠকে বসতে পারেন।

https://platform.twitter.com/widgets.js

এর আগে দুই পক্ষের মধ্যে ছয় জুন সৈন্য কম্যান্ডার স্তরে কথাবার্তা হয়। ওই আলোচনায় ভারতের ১৪ কোরের কম্যান্ডার লেফটিনেন্ট জেনারেল হরিন্দর সিং নেতৃত্বে ছিলেন। চিনের তরফ থেকে দক্ষিণ শিনজিয়াং জেলা কম্যান্ডার জেনারেল লিয়ু লিন নেতৃত্বে ছিল।

ওই আলোচনায় তৎকাল পরিণাম পাওয়া যায় নি, কারণ দুই পক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে গতিরোধ এর পরিস্থিতিতে বজায় ছিল। দুই পক্ষ সমস্যার সমাধানের জন্য রাজনৈতিক এবং সামরিক দিক থেকে আলোচনা চালিয়ে যাওয়ায় সহমত পোষণ করে। সোমবার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেছিলেন যে, চিনের সাথে কূটনৈতিক এবং সামরিক দিক থেকে কথাবার্তা জারি আছে।