রোহিঙ্গা নেতা হত্যায় বিশ্বে ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে : ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে নিরাপত্তা দিতে সরকার ব্যর্থ।  রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ যিনি রোহিঙ্গাদের স্বদেশে প্রত্যাবর্তনের জন্য অত্যন্ত সোচ্চার ছিলেন। রোহিঙ্গা শিবিরে তাকে নির্মমভাবে প্রকাশ্যে হত্যার ঘটনা বিশ্বে দেশের ভাবমূর্তি চরমভাবে বিনষ্ট হয়েছে। তাকে গুলি করে বর্বরোচিত কায়দায় হত্যার ঘটনায় আমরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন ও মর্মাহত।

আজ গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন। গতকাল বুধবার রাত সাড়ে আটটায় কক্সবাজারের উখিয়ায় লাম্বাশিয়া রোহিঙ্গা শিবিরে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাকে গুলি করে নৃশংসভাবে হত্যা করে। এ ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব।

মির্জা ফখরুল বলেন, রোহিঙ্গা শরণার্থীদেরকে নিজ দেশে ফেরত পাঠাতে ব্যর্থ এই সরকার দেশে আশ্রিত শরণার্থীদেরকে নিরাপত্তা দিতেও সম্পূর্ণরুপে ব্যর্থ হয়েছে। দেশে যে জান-মালের কোন নিরাপত্তা নেই, আইন শৃঙ্খলার কোন বালাই নেই, তার নিকৃষ্ট প্রমাণ হলো উখিয়ায় রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাকে গুলি করে হত্যা। এই সরকারের শাসনামলে অপরাধ করেও বিচার হয় না। বিচার হলেও সরকারি দলের অপরাধীরা ছাড়া পেয়ে যায়। পরে তারা দ্বিগুণ উৎসাহে অপরাধ করতে উৎসাহী হয়। রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাকে গুলি করে হত্যাকারী সন্ত্রাসীদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানান বিএনপি মহাসচিব।