রোজা রেখেও টিকা নেওয়া যাবে, জানাল যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্য বিভাগ

বিশ্বজুড়ে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের তাণ্ডব চলছেই। এই ভাইরাসের প্রথম ঢেউয়ে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে গোটা বিশ্ব। সে সময় মারা যায় কয়েক লাখ মানুষ। সেই প্রকোপ কিছুটা কমতেই দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয় বিশ্বব্যাপী। আবারও সারা বিশ্বে বাড়তে শুরু করেছে সংক্রমণ ও মৃত্যু। এতে নাজেহাল হয়ে পড়েছে বিশ্ববাসী।

তবে এই ভাইরাস প্রতিরোধে ইতোমধ্যে আবিষ্কার হয়েছে ভ্যাকসিন। কয়েক মাস ধরেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু হয়েছে। বাংলাদেশেও বর্তমানে চলছে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ কার্যক্রম।

কিন্তু এর মধ্যেই চলে আসছে পবিত্র রমজান মাস। এমন অবস্থা প্রশ্ন উঠেছে রোজায় টিকা নেওয়া যাবে কি না। তবে এমন প্রশ্নের সমাধান দিয়েছেন ইসলামি শিক্ষাবিদ ও যুক্তরাজ্যের জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ।

তারা জানিয়েছেন, রমজানের সময়ে রোজা থাকলেও মুসলমানদের টিকা নেওয়া থেকে বিরত থাকা উচিত হবে না। কেননা, এতে রোজার কোনও ক্ষতি হবে না। খবর বিবিসির।

প্রতিবেদনে বলা হয়, যদিও মুসলমানরা রোজা থাকা অবস্থায় সুবহে সাদিক থেকে সুর্যাস্ত পর্যন্ত সব ধরনের পানাহার থেকে বিরত থাকেন।

তবে যুক্তরাজ্যের ইমাম ক্বারী আসিম বলেছেন, ভ্যাকসিন রক্ত প্রবাহের চেয়ে পেশিতে চলে যায় এবং এটি পুষ্টিকর (কোনও খাবারও) নয়। এটা রোজা ভাঙার মতো উপাদান নয়।

মসজিদ ও ইমামদের জাতীয় উপদেষ্টা বোর্ডের সভাপতি আসিম বিবিসিকে বলেন, “বেশিরভাগ ইসলামি বিশেষজ্ঞের ধারণা, রমজানের সময় এই ভ্যাকসিন গ্রহণ করলে রোজা বাতিল হবে না।”

মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতি তার বার্তা হল, “আপনি যদি ভ্যাকসিনের জন্য যোগ্য হন এবং আপনাকে যদি ভ্যাকসিন নিতে ডাকা হয়, তখন আপনার নিজেকে জিজ্ঞাসা করা দরকার: আপনি কি ভ্যাকসিন গ্রহণ করবেন, যা কার্যকর বলে প্রমাণিত হয়েছে। নাকি আপনি করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি নিবেন, যা আপনাকে খুব অসুস্থ করে তুলবে এবং যে কারণে সম্ভবত আপনার পুরো রমজানই মিস হয়ে যেতে পারে। এমনকি শেষ পর্যন্ত হাসপাতালেও যেতে হতে পারে।”