যেভাবে নিজের বয়স ধরে রেখেছেন মালাইকা

ফিটনেস, ফ্যাশন, ব্যক্তিগত জীবন এসব নিয়ে বরাবরই আলোচনায় থাকেন বলিউড অভিনেত্রী মালাইকা। নিজেকে ফিট রাখার বিষয়ে এক চুলও ছাড় দেন না নায়িকা। জিমের পাশাপাশি নিয়ম করে করেন যোগব্যায়াম। প্রায়ই যোগব্যায়ামের ছবি সামাজিক যোগাযোগামাধ্যমে শেয়ার করেন। এখন প্রশ্ন হলো ৪৭ বছর বয়সেও কীভাবে নিজেকে ফিট রাখেন অভিনেত্রী? চলুন জেনে নেওয়া যাক।

স্বাস্থ্যকর ডায়েট, হার্ড কোর ওয়ার্কআউট এবং যোগব্যায়ামের মাধ্যমে মালাইকা তার বয়সকে ধরে রেখেছেন। যোগ ব্যায়াম ছাড়াও মালাইকার ফিটনেসের আরেকটি রহস্য আছে যা তিনি শেয়ার করেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

মালাইকা ‘ব্ল্যাক ওয়াটার’ পান করেন প্রতিদিন
সম্প্রতি মালাইকাকে মুম্বাইয়ের পাইলেটস ক্লাস থেকে বের হতে দেখা যায়।তখন একজন চিত্র সাংবাদিক তাকে জিজ্ঞেস করেন ম্যাডাম, আপনি কি ব্ল্যাক ওয়াটার পান করেন? এটা শুনে তিনি হেসে বললেন,আলকেলাইন ওয়াটার তিনি পান করেন। মালাইকার ডায়েটে সবচেয়ে বেশি থাকে শাক-সবজি। যেসব খাবারে অ্যান্টি- অক্সিডেন্টের পরিমাণ বেশি সেগুলোও বেশি তালিকায় রাখেন মালাইকা।

আলকেলাইন ওয়াটার যেসব সমস্যা কমায়
আলকেলাইন ওয়াটার সম্পর্কে অনেকে বলেন যে এটি পান করলে অকাল বার্ধক্য দেখা দেয় না । বিশেষজ্ঞরা বলেন, এই পানীয় ব্যবহারে শরীরের পিএইচ মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে, কারণ এই পানীয়ের পিএইচ মাত্রা স্বাভাবিক পানির তুলনায় বেশি। এই দীর্ঘস্থায়ী রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করতে পারে। একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে এই পানি পান করলে যাদের উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস এবং কোলেস্টেরলের সমস্যা আছে তারা হতে পারেন।

আলকেলাইন ওয়াটারের উপকারিতা:
১.বিপাক ক্রিয়া ভালো রাখে।

২.অক্সিজেন গ্রহণের ক্ষমতা বাড়ায়।

৩.ডি-টক্সিফিকেশন এবং হজম ভালো।

৪.এই পানীয়ে বার্ধক্য রোধ করা যায়।

৫ পেট পরিষ্কার করতে সাহায্য করে।

৬.এই পানীয় আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে।

৭.এটি পান করলে আপনি দীর্ঘ সময়ের জন্য হাইড্রেটেড থাকবেন।

৮.প্রতিদিন পানি খাওয়ার ফলে ত্বক থেকে টক্সিন বের হয়ে যায়।

৯.এই পানীয় ওজন কমাতেও সহায়ক।

১০.ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে আলকেলাইন ওয়াটার।