ব্রোঞ্জজয়ীকে দেওয়া কথা রাখলেন মোদি

কথা দিয়েছিলেন। সেইমতো টোকিও থেকে ফেরার পর সোমবার ভারতীয় তারকা তথা এবারের অলিম্পিকে ব্রোঞ্জজয়ী পি ভি সিন্ধুকে আইসক্রিম খাওয়ালেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেই সময় রীতিমতো উচ্ছ্বসিত দেখাচ্ছিল অলিম্পিক্সে দুইবার পদকজয়ী ভারতীয় শাটলারকে।

সোমবার নয়াদিল্লিতে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে আসেন ভারতীয় অ্যাথলিটরা। সেখানে ছিলেন সোনাজয়ী নীরজ চোপড়া, ভারতীয় হকি দলের সদস্যরা, সিন্ধুসহ একাধিক খেলোয়াড়। অলিম্পিক্সে ইতিহাসসেরা পারফরম্যান্সের (পদকের নিরিখে সর্বোচ্চ এবং র‌্যাঙ্কিংয়ের নিরিখেও কার্যত সেরা) জন্য ভারতীয় অ্যাথলিটদের প্রশংসা করেন। ব্যক্তিগতভাবেও দেখা করেন প্রধানমন্ত্রী। তারই মধ্যে একটি গোলটেবিলে সিন্ধু ও মোদি দাঁড়িয়েছিলেন। হাসিমুখে ছিলেন ভারতীয় শাটলার। তার সামনে রাখা ছিল আইসক্রিম।

গত জুলাইয়ে টোকিও উড়ে যাওয়ার আগে ভারতীয় অ্যাথলিটদের সঙ্গে আলাপচারিতা সেরেছিলেন মোদি। সেখানে তিনি জানতে চেয়েছিলেন, রিও অলিম্পিক্সের আগে যেমন নিজের প্রিয় আইসক্রিম ছুঁয়েও দেখেননি সিন্ধু, এবারও কি সেরকম করছেন? সেইসঙ্গে বলেছিলেন, ‌‘কঠোর পরিশ্রম করো। আমি আত্মবিশ্বাসী যে তুমি আবারও সফল হবে। তুমি যখন অলিম্পিক্স থেকে ফিরবে, তখন তোমার সঙ্গে আইসক্রিম খাব।’
এবার টোকিও অলিম্পিক্সে মহিলা সিঙ্গলসে রূপা জিতেন সিন্ধু। প্রথম ভারতীয় মহিলা অ্যাথলিট হিসেবে অলিম্পিক্সে দুটি পদক জয়ের নজির গড়েছেন তারকা। যিনি ২০১৬ সালের রিও অলিম্পিক্সে রূপা জিতেছিলেন। এবার সেই পদকের রং সোনালীতে পরিণত করার লক্ষ্যে টোকিওয় গিয়েছিলেন। প্রবল লড়াই সত্ত্বেও সেই লক্ষ্যপূরণ না হলেও ২০২৪ সালের প্যারিস অলিম্পিক্সে যে সিন্ধু সোনা জয়ের অন্যতম দাবিদার, তা নিয়ে কোনো দ্বিমত নেই দেশের ক্রীড়ামহলের।

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস