বৃষ্টি থামেনি; ড্র মেনে নিলেন দুই অধিনায়ক

প্রথম ইনিংসে ৯০ রানে আউট হওয়ার দুঃখটা আজ দ্বিতীয় ইনিংসে প্রায় ঘুচিয়েই ফেলেছিলেন তামিম ইকবাল। তবে তাকে অপরাজিত ৭৪* রানেই সন্তুষ্ট থাকতে হলো। কারণ পাল্লেকেলে টেস্টের পঞ্চম  দিনে বৃষ্টি হানা দেওয়ায় এক সেশন বাকি থাকতেই ম্যাচ ড্র ঘোষণা করা হয়েছে। এই নিয়ে শ্রীলঙ্কার মাটিতে ২৮ ম্যাচ পর কোনো টেস্ট ড্র ঘোষিত হলো। তামিমের আক্ষেপ থাকলেও তার অসাধারণ পারফর্মেন্সের প্রশংসা না করে উপায় নেই।

প্রথম ইনিংসে করা বাংলাদেশের ৭ উইকেটে ৫৪১ রানের জবাবে ৮ উইকেটে ৬৪৮ রানে নিজেদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে শ্রীলঙ্কা। বাংলাদেশের দুই সেঞ্চুরিয়ান নাজমুল হোসেন শান্ত (১৬৩) আর অধিনায়ক মুমিনুল হক (১২৭)। জবাবে লঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে খেলেন ২৪৪ রানের ইনিংস। আর ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা করেন ১৬৬ রান। এই রান উৎসবের মাঝে দুই দিন আগেই সবাই বুঝে গিয়েছিল যে, ম্যাচ নিশ্চিতভাবেই ড্র হতে যাচ্ছে।

শেষ পর্যন্ত সেটাই হয়েছে। ১০৭ রানে পিছিয়ে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে বাংলাদেশ। ওপেনার সাইফ হাসান এবারও ব্যর্থ। ফিরেন ১ রান করে। আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান শান্ত ৮ বল খেলে ফিরেন ‘ডাক’ মেরে। দেশসেরা ওপেনার তামিমের সঙ্গী হন অধিনায়ক মুমিনুল হক। দুজনে মিলে ভালোই খেলছিলেন। তামিম সেঞ্চুরির আশায় ওয়ানডে স্টাইলে ব্যাট করছিলেন। তবে বৃষ্টি এসে বাগড়া দেওয়ায় শেষ পর্যন্ত তাকে ৯৮ বলে ১০ চার ৩ ছক্কায় ৭৪* রানে অপরাজিত থাকতে হয়। মুমিনুল অপরাজিত ২৩* রানে।