বিয়ের আগে নিজের ‘ব্যাচেলর প্যাড’-এ শিল্পাকে ডেকেছিলেন রাজ

অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের অকাল মৃত্যুর পর বলিউডের অন্ধকার দিকগুলো প্রকাশ্যে এসেছিল। মাদককাণ্ডে জড়িত থাকার বিষয়ে জেরা করা হয়েছিল দীপিকা পাড়ুকোন, অর্জুন রামপাল, সারা আলী খান, শ্রদ্ধা কাপুরসহ বহু তারকাকে। স্বজনপ্রীতি ও সিনেমায় কাজের সুযোগ নিয়ে রাজনীতির বিষয়ে সঞ্জয় লীলা বানশালি, আদিত্য চোপড়ার মতো নির্মাতাদেরও জেরা করা হয়। এবার আরেক বলিউড তারকা শিল্পা শেঠির স্বামী রাজ কুন্দ্রা পর্নোগ্রাফি ব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়ার পর আরও একবার বলিউডের অন্ধকার দিকগুলো নিয়ে নাড়াচাড়া শুরু হয়েছে। শিল্পার সঙ্গে রাজের কীভাবে পরিচয় হয়েছিল তার একটি ভিডিও ফের ভাইরাল হয়েছে।

জানা গেছে, কাজের সূত্রে রাজের সঙ্গে প্রথম বার লন্ডনে দেখা হয় শিল্পার। প্রথম ঝলকেই শিল্পার তাকে মনে ধরে যায়। কিন্তু তিনি জানতে পারেন, রাজ বিবাহিত। শিল্পা জানতেন না যে প্রাক্তন স্ত্রীর সঙ্গে রাজের তখন বিবাহ-বিচ্ছেদের প্রক্রিয়া চলছে। ধীরে ধীরে জানতে পারেন রাজের অতীতের ব্যপারে।

শিল্পা সেই সময়ে প্রায়শই লন্ডনে যেতেন কাজের সূত্রে। রাজ এক বার তাকে নিজের ‘ব্যাচেলর প্যাড’-এ থাকতে বলেছিলেন। সেখান থেকেই শিল্পা জানতে পারেন, রাজের নিজস্ব ‘ব্যাচেলর প্যাড’ আছে। কারণ তার বিবাহবিচ্ছেদ হতে চলেছে। পাশ্চাত্য সংস্কৃতিতে ‘ব্যাচেলর প্যাড’ খুব সাধারণ বিষয়। বিশেষ করে পুরুষদের ক্ষেত্রে এই চল রয়েছে। কোনও এক জন অবিবাহিত বা বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে যাওয়া পুরুষ একটি বাড়িতে ‘ব্যাচেলর প্যাড’ তৈরি করেন। যেখানে অন্যান্য ব্যাচেলর পুরুষরাও থাকেন। আড্ডা, খেলাধুলা, শখ পূরণের পাশাপাশি যৌন পেশার সঙ্গে জড়িত পুরুষ বা মহিলাদের সেখানে ডাকা হয়। যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হওয়ার চলও রয়েছে।

শিল্পা ও রাজের মধ্যে আলাপের পরে বন্ধুত্ব তৈরি হয়। এক দিন আচমকা শিল্পার কাছে পার্সেল আসে। দেখা যায়, তাতে তিনটি ভিন্ন ভিন্ন রঙের অত্যন্ত মূল্যবান ব্যাগ। শিল্পা সেই সাক্ষাৎকারে জানান, তিনি বুঝতে পারছিলেন যে রাজ নানাভাবে চেষ্টা করছেন তার মন জয় করতে। কিন্তু তাকে দামি দামি উপহার পাঠাতে বারণ করে দেন শিল্পা।

তার দাবি ছিল, রাজের সঙ্গে যে বন্ধুত্ব তৈরি হয়েছিল, তা নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয় ছিল তার। কিন্তু রাজ যে তাকে প্রেমের ইঙ্গিত দিতেন, সেই কথাও বলেছিলেন শিল্পা। কিন্তু লন্ডনে গিয়ে থাকা সম্ভব নয় বলে শিল্পা রাজের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিতেন। তার কিছু সময় পরে রাজ মুম্বাইয়ে বাড়ি কিনে সেখান থেকেই তার ব্যবসা চালাবেন বলে স্থির করেন। তার পরেই তাদের প্রেমপর্ব শুরু হয়। বিয়ে হয় শিল্পা আর রাজের।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা