বাদল রায়ের শেষকৃত্য সম্পন্ন : চোখের জলে বিদায়

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সাবেক সহ-সভাপতি বাদল রায়ের শেষকৃত্য আজ রাজধানীর সবুজবাগ কালীমন্দির শ্মশানঘাটে সম্পন্ন হয়েছে। বাংলাদেশ পাটকল কর্পোরেশনের সাবেক পরিচালক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্লু খেতাব ধারী জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের সাবেক ফুটবল তারকা বাদল রায় গতকাল রবিবার রাজধানীর একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬২ বছর।

আজ সকাল ১১টায় বাদল রায়ের নিথর দেহ ফুলে ফুলে সেজে আসে তাঁর প্রিয় ক্লাব মোহামেডান প্রাঙ্গনে। করোনার ভয় উপেক্ষা করে জমে গেল ভিড়। তাঁর সেই সময়ের সতীর্থ কায়সার হামিদ, ইমতিয়াজ সুলতান জনি, আবদুল গাফফাররা জলভরা চোখে বিদায় দিলেন বাদল রায়কে। বাদল রায়ের স্ত্রী গায়ত্রী রায়, মেয়ে আর ছেলেও উপস্থিত ছিলেন এসময়। এসেছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ফজলে নূর তাপস। ভক্তদের ভালোবাসার ফুলে ফুলে ভরে গেল তাঁর বিদায়ের শয্যা।

এরপর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে আনা হয় বাদলের মরদেহ। সেখানে তাকে শেষ বিদায় জানান সতীর্থ ফুটবলার ও সহকর্মী, বাফুফে কর্মকর্তা, ক্রীড়া সংগঠক, বন্ধু-বান্ধব সহ সর্বস্তরের মানুষ। ১৯৭৭ সালে মোহামেডানের হয়ে জাতীয় পর্যায়ের ফুটবলে অভিষিক্ত হওয়ার পর থেকেই একই ক্লাবে কাটিয়ে দিয়েছেন তার প্রায় এক যুগের খেলোয়াড়ী জীবন। তিনি আন্তর্জাতিক ফুটবলেও জাতীয় ফুটবল দলকে বহুবার নেতৃত্ব দিয়েছেন।