বঙ্গবন্ধুকে রক্ষা করতে না পারা আমাদের বড় ব্যর্থতা : মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রী

মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে রক্ষা করতে না পারার ব্যর্থতার দায় তৎকালীন আওয়ামী লীগেরও ছিল। আওয়ামী লীগ সুসংগঠিত থাকলে ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করতে পারতো না। তৎকালীন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বকে এজন্য ইতিহাসের কাঠগড়ায় জবাব দিতে হবে।’

বুধবার দুপুরে বরিশাল নগরীর কাশীপুর মৎস্য প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সম্মেলন কক্ষে ইউনিয়ন পর্যায়ে মৎস্য চাষ প্রযুক্তি সেবা সম্প্রসারণ প্রকল্পের বিভাগীয় মূল্যায়ন কর্মশালা শেষে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, ‘জাতির অনেক অর্জন রয়েছে। কিন্তু সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা হচ্ছে বঙ্গবন্ধুকে ঘাতকদের হাত থেকে রক্ষা করতে না পারা। কোথায় কী ঘটতে যাচ্ছে, তৎকালীন পলিটিক্যাল উইং কেন খোঁজ-খবর রাখেনি। এটা তাদের দায়িত্ব ছিল। তৎকালীন গোয়েন্দা সংস্থা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী কেন তখন ষড়যন্ত্রের আগাম তথ্য জানতে পারেনি। এর দায় তৎকালীন সংশ্লিষ্ট সকলকে নিতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার করা যাবে না, এটা যারা রচনা করেছিলেন, এর সাথে যারা সংশ্লিষ্ট জাতির কাছে তাদের স্বরূপ উন্মোচন করতে হবে। এজন্য উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন তদন্ত কমিশন গঠন হওয়া দরকার বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

এর আগে, ইউনিয়ন পর্যায়ে মৎস্য চাষ প্রযুক্তি সেবা সম্প্রসারণ প্রকল্পের বিভাগীয় মূল্যায়ন কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন তিনি।

বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার মো. সাইফুল হাসান বাদলের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দার, মৎস্য অধিদপ্তরের পরিচালক আজিজুল হক, ইউনিয়ন পর্যায়ে মৎস্য চাষ প্রযুক্তি সেবা সম্প্রসারণ প্রকল্পের পরিচালক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান এবং বরিশাল বিভাগীয় মৎস্য অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আনিছুর রহমান তালুকদার। এছাড়া মৎস্য বিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তা এবং প্রান্তিক মৎস্য চাষিরা মূল্যায়ন কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন।