প্যারিসে চীনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ, ১৪টি দেশের নাগরিক একত্রিত

১৪টি দেশের নাগরিক চীনা কমিউনিস্ট পার্টির (সিসিপি) মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে প্যারিসে বিক্ষোভ করেছেন। প্রথমবারের মতো আফ্রিকা ও এশিয়া অ্যাসেম্বলি (এএএ) নামে একটি ব্যানারে একত্রিত হন তারা।

বিক্ষোভকারীরা পশ্চিমা দেশগুলোকে সিসিপির মানবাধিকার লঙ্ঘনের দিকে মনোনিবেশ করতে বলেন এবং বেইজিং অলিম্পিক বয়কটের দাবি জানান।

হংকং, তিব্বত, জিনজিয়াং, তাইওয়ান, ক্যামেরুন, মিয়ানমার এবং বালুচিস্তানের ভিন্নমতাবলম্বীরাও এতে অংশ নেয় এবং চীনের দখল, তাদের জমি ও সম্পদ শোষণের বিরুদ্ধে স্লোগান দেয়।

সিসিপির নির্যাতনের শিকার ব্যক্তিদের এবং পশ্চিমে চীনের সাম্রাজ্যবাদের সহযোগীদের প্রতি একাত্মতা প্রকাশের জন্য এক মিনিট নীরবতা পালনের সাথে সাথে বিক্ষোভ শুরু হয়।

এই সমাবেশে ভিন্নমতাবলম্বী শৈল্পিক অভিব্যক্তি উপস্থাপন করা হয়, যার মধ্যে রয়েছে হাতে তৈরি পুতুল ব্যবহার করে একটি নাট্য প্রদর্শনী, যেখানে চীনের সহিংসতা “রেড ড্রাগন” পুতুল ব্যবহারের মাধ্যমে চিত্রিত করা হয়।

বিক্ষোভকারীরা বলেন, আজ আফ্রিকান এবং এশিয়ার দেশগুলো চীনা সাম্রাজ্যবাদের বিরুদ্ধে একত্রিত হয়েছে। চীন একটি বড় অর্থনীতি এবং আমাদের সবার তার সাম্রাজ্যবাদী নীতির বিরুদ্ধে দাঁড়ানো উচিত। আমাদের একসাথে লড়াই করা উচিত। পশ্চিমাদের উচিত চীনা পণ্য বর্জন করা এবং চীনের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা।