পুরুষের প্রতি আসক্তি, নুসরাতের অভিযোগে যা বললেন নিখিল

নুসরাত জাহান ও নিখিল জৈনের সম্পর্কে নতুন বিষয়ের আবির্ভাব যেন চমকেই দিল সাধারণ মানুষকে। নিখিল ছিলেন উভকামী- এমন শিরোনামেই ভারতের বেশ কিছু বাংলা সংস্করণের পত্রিকা খবর প্রকাশ করেছে।

ভারতের সংবাদমাধ্যমের খবর, নিখিল জৈন পুরুষের প্রতি আসক্ত ছিল। সেটা প্রথমে নুসরাত জানতেন না। তবে বিয়ের পর নিখিলের জন্মদিনের রাতে ঘটে বিপত্তি। নিখিলকে তার এক পুরুষ বন্ধুর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলেন নুসরাত।

মূলত ওই ঘটনার পর থেকেই নুসরাত নিখিলকে এড়িয়ে চলতে শুরু করেন। একপর্যায়ে তিনি নিখিলের সঙ্গে সম্পর্কে না থাকার কথা জানান। এমনকি বিয়ে করার বিষয়টিও অস্বীকার করেন নুসরাত। তার দাবি, তিনি নিখিলের সঙ্গে ‘লিভ ইন’ সম্পর্কে ছিলেন।

নুসরাতের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, নুসরাতের স্বামী নিখিল উভকামী। মেয়েদের পাশাপাশি পুরুষের প্রতিও তিনি আসক্ত। তার বেশ কয়েকজন পুরুষ সঙ্গীও রয়েছে।

নিখিলকে জড়িয়ে এমন খবর ছড়ানোর পর তা গুজব এবং মিথ্যা বলে দাবি করেছেন তিনি। নিখিল বলেছেন, ‘তার স্কুলের ছোটবেলার বন্ধুকে নিয়ে যে ধরনের শারীরিক সম্পর্কের ইঙ্গিত করা হয়েছে, তা ন্যক্কারজনক। নুসরাত আমার স্কুলের বন্ধুদের জড়িয়ে নোংরা গল্প বানিয়েছে।’

ঘনিষ্ঠ বন্ধুর বিবাহবিচ্ছেদ প্রসঙ্গে তার সঙ্গে বন্ধুর যে যৌন সম্পর্কের যে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে, তাতেও ক্ষুব্ধ নিখিল। তিনি, ‘ও আমার ছোটবেলার বন্ধু। ওর পরিবারের সঙ্গে আমার পরিবারের খুবই ঘনিষ্ঠতা। সেই ঘনিষ্ঠতা নিয়ে এতো নোংরা ব্যাখ্যা করা হলো।’

নিখিল বলেন, ‘যশের সঙ্গে নুসরাতের বিয়ে হয়ে গেছে। তাদের সন্তান ঈশান জন্ম নিয়েছে। নুসরাত পরিবার পেয়েছে, তা নিয়ে সুখে থাকুক। আমার সম্পর্কে এসব বলে ও কী প্রমাণ করতে চাইছে?’