পাকিস্তানে ভাঙচুর চালানো হল শতাব্দী প্রাচীন বৌদ্ধ স্থলে! কড়া হুঁশিয়ারি দিলো ভারত

ওয়েবডেস্কঃ ভারতের (India) বিদেশ মন্ত্রালয় আজ পাকিস্তানের (Pakistan) অবৈধ কবজায় থাকা গিলগিট-বাল্টিস্তানে একটি বৌদ্ধ স্মারক ভেঙে ফেলা নিয়ে কড়া নিন্দা করেন। বিদেশ মন্ত্রালয়ের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব বলেন, ‘আমরা ভারতের অংশ বালটিস্তানে থাকা একটি অমুল্য ভারতীয় বৌদ্ধ স্থলের অপমান আর ভাঙচুর করার ঘটনা নিয়ে কড়া আপত্তি আর চিন্তা জাহির করেছি। ওই এলাকা ভারতের, কিন্তু পাকিস্তান ওই এলাকায় অবৈধ ভাবে কবজা করে রেখেছে।”

বিদেশ মন্ত্রালয় জানায়, এটি গভীর চিন্তার বিষয় যে ভারতের সেইসব অংশে যেখানে পাকিস্তান অবৈধ ভাবে কবজা করে বসে আছে, সেখানে পাকিস্তানের তরফ থেকে বৌদ্ধ স্মারক নষ্ট করছে আর ধার্মিক এবং সাংস্কৃতিক অধিকার এবং স্বাধীনতাকে হনন করা হচ্ছে।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, গিলিগিট বাল্টিস্তানের চিলাস এলাকায় ৮০০ AD এর বৌদ্ধ শিলা এবং কারুকার্য গুলোকে ভাংচুর করা হয়েছে। আর সেখানে পাকিস্তানি ঝাণ্ডার ছবি এঁকে দেওয়া হয়। ওই নকশা আর কারুকার্য গুলো পুরাতত্ব দৃষ্টিতে খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

https://platform.twitter.com/widgets.js

শ্রীবাস্তব বলেন, প্রাচীন সভ্যতা আর সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে অপমান করা এমন ঘটনা চরম নিন্দনীয়। আমরা এই অমুল্য পুরাতাত্বিক ঐতিহ্যকে পুনরায় স্থাপন করা এবং সেগুলোকে সংরক্ষণ করার জন্য বিশেষজ্ঞদের দাবি জানিয়েছে।

মন্ত্রালয় জানিয়েছে,

‘আমরা পাকিস্তানকে আরও একবার জানিয়ে দিইয়েছি যে, তাঁরা যেন অবৈধ ভাবে কবজা করা এলাকা তৎকাল রুপে খালি করে দেয় আর সেখানে বসবাসকারী মানুষের সাংস্কৃতিক, আর্থিক আর রাজনৈতিক অধিকার গুলোকে লঙ্ঘন করা বন্ধ করে।”