দুইদিনের মধ্যে যুদ্ধবিরতি হতে পারে: হামাস কর্মকর্তা

আগামী এক অথবা দুইদিনের মধ্যেই ইসরায়েল ও গাজার যোদ্ধারা যুদ্ধবিরতিতে যেতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন হামাসের এক কর্মকর্তা। বৃহস্পতিবার (২০ মে) এখবর দিয়েছে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি। তবে বুধবার পর্যন্ত এমন ভাবনা মাথায়ই আনেন নি ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। তিনি বলেছেন, ইসরায়েলি জনগণের জন্য শান্তি প্রতিষ্ঠিত হওয়ার আগ পর্যন্ত হামলা চলবে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, হামাসের পলিটিকাল অফিসার মৌসা আবু মারজুক বলেছেন, আমি মনে করি যুদ্ধবিরতি সংক্রান্ত চলমান প্রচেষ্টা সফল হবে। আমি আশা করি এক বা দুদিনের মধ্যেই যুদ্ধবিরতি হবে এবং পারস্পরিক চুক্তির ভিত্তিতে এই যুদ্ধবিরতি হবে।

অন্যদিকে গাজায় হামলা কমিয়ে দ্রুত যুদ্ধবিরতির দিকে যেতে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুকে বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেছেন, এখনই শেষের শুরু করতে হবে। হোয়াইট হাউজ জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট বাইডেন নেতানিয়াহুকে হামাসের সঙ্গে সংঘাত দ্রুত কমিয়ে যুদ্ধবিরতির পথে হাঁটতে বলেছেন। এই প্রথম প্রেসিডেন্ট বাইডেন প্রকাশ্যে যুদ্ধবিরতির জন্য নেতানিয়াহুর ওপর চাপ প্রয়োগ করলেন।

এর আগে তিনি বলেছিলেন, হামাসের রকেট থেকে আত্মরক্ষার অধিকার ইসরাইলের আছে। এই বক্তব্যের পর ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও তার ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়। এমনকি তার নিজ দলের উদারপন্থিরাও তার এই বক্তব্যের সমালোচনা করেন। তবে নেতানিয়াহু এই ফোনালাপের পর গতকাল বলেছেন, ইসরাইলের লক্ষ্য পূরণ না হওয়া পর্যন্ত বোমা হামলা চলবে।