তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহারে বাংলাদেশ বিশ্বে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহারে বাংলাদেশ বিশ্বের অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত।

বুধবার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ আয়োজিত “ডিজিটাল নিরাপত্তায় মেয়েদের সচেতনতা” শীর্ষক ওয়েবিনারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন বলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে।

তিনি বলেন, যোগাযোগ, শিক্ষা, চিকিৎসা, কৃষি সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহারে বাংলাদেশ ঈর্ষণীয় সাফল্য দেখিয়েছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকারের অন্যতম রূপকল্প ডিজিটাল বাংলাদেশের সফল বাস্তবায়ন ঘটেছে। ফলে, করোনাকালেও আমাদের কর্মকাণ্ড থেমে থাকেনি। সারা বিশ্ব যখন করোনার প্রভাব মোকাবেলায় হিমশিম খাচ্ছে, তখন আমরা তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছি।

তিনি আরো বলেন, সারা পৃথিবীতে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার ভবিষ্যতে আরো বৃদ্ধি পাবে। তাই এখন থেকেই এ বিষয়ে দক্ষ জনশক্তি গড়ার প্রতি নজর দিতে হবে। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ল্যাবগুলোকে আরও সমৃদ্ধ করতে হবে যাতে শিক্ষার্থীরা হাতে-কলমে জ্ঞান অর্জন করতে পারে।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, তথ্য প্রযুক্তির সফলতার পাশাপাশি কিছু চ্যালেঞ্জ ও রয়েছে।  প্রযুক্তির মাধ্যমে  বিভিন্ন সাইবার অপরাধ সংগঠিত হচ্ছে। এসব সাইবার অপরাধের যারা শিকার হচ্ছেন তাদের অধিকাংশই কিশোরী বয়সের। তাই এ বিষয়ে শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি শিক্ষক ও অভিভাবকদের সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে।

ইলেকট্রনিক স্বাক্ষর সার্টিফিকেট প্রদান কারী কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রক আবু সাঈদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে মেহেরপুরের জেলা প্রশাসক ডক্টর মোহাম্মদ মুনসুর আলম খান বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সাইবার অপরাধ ও নিরাপত্তার উপ-নিয়ন্ত্রক হাসিনা বেগম‌।

প্রতিমন্ত্রী এরপর মেহেরপুর জেলা প্রশাসন ও  কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর আয়োজিত ২০২০-২১ অর্থবছরে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

মেহেরপুরের জেলা প্রশাসক ডক্টর মোহাম্মদ মুনসুর আলম খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক স্বপন কুমার খাঁ স্বাগত বক্তব্য রাখেন।