চীনের মাইক্রোওয়েভ অস্ত্র ব্যবহারের দাবি উড়িয়ে দিলো ভারত

চীন ও ভারতের মধ্যকার বিরোধপূর্ণ লাদাখ সীমান্তে চীন কর্তৃক মাইক্রোওয়েভ প্রযুক্তির অস্ত্র ব্যবহারের দাবিকে প্রত্যাখান করেছে ভারত। সম্প্রতি ওয়াশিংটন ভিত্তিক একটি সংস্থার খবরে একজন চীনা অধ্যাপক দাবি করেন, চীন মাইক্রাওয়েভ প্রযুক্তির অস্ত্রের মাধ্যমে দুটি  পাহাড়চূড়া থেকে ভারতীয় সৈন্যদের সরিয়ে দিতে সক্ষম হয়েছিল। কিন্তু ভারতের পক্ষ থেকে এমন দাবিকে উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

চীনের রেনমিন বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের এই অধ্যাপকের দাবি, লাদাখে ভারতীয় সৈন্যরা যে পাহারচূড়া দুটিতে অবস্থান করছিল সেখানে গত ২৯ আগস্ট মাইক্রোওয়েভ প্রযুক্তির অস্ত্র প্রয়োগে ভারতীয় সৈন্যরা বমি করতে শুরু করে। এক পর্যায়ে তারা আর সেখানে অবস্থান করতে পারছিল না বলে মন্তব্য করেন ওই অধ্যাপক।  কিন্তু ভারত জানিয়েছে, এমন কোনো ঘটনাই ঘটেনি। ভারতের সেনাবহিনীর একজন পদস্থ কর্মকর্তা বলেন, যদি এমন কোনো ঘটনা ঘটে থাকে তাহলে চীন আমাদের ওই সব এলাকা থেকে এখনও সরে যেতে বলছে কেন?

লাদাখ নিয়ে সংঘাতে চীনের সঙ্গে সর্বশেষ ৮ দফা আলোচনার মধ্য দিয়ে একটি স্থিতাবস্থা বিদ্যমান রয়েছে বর্তমানে যা কয়েকদিন আগে সমাধান করা গেছে। এসব বৈঠকে চীনের দাবি ছিল, বিরোধপূর্ণ এলাকা থেকে সরে যাওয়ার। তবে এ মুহুর্তে এসব বলার কারণ সম্পর্কে ভারতের ওই কর্মকর্তার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, চীন এখন চাইছে ভারতের ওপর মানসিক চাপ বাড়াতে এবং সে কারণেই এসব বলছে। কিন্তু কৌশলটি খুব দুর্বল বলে উল্লেখ করেছে ভারত।

মাইক্রোওয়েভ উইপন হলো বিশেষ ধরনের অস্ত্র। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহিনীর ল্যাবরেটরিতে এটির গবেষণা প্রথম শুরু হয়। বিশেষ প্রযুক্তিতে লেজার রশ্মি, ক্ষুদ্র তরঙ্গ প্রয়োগের মাধ্যমে শত্রুকে কাবু করতে এ ধরনের অস্ত্রের প্রয়োগ করা যায় বলে জানা গেছে। এছাড়া নিজেদের অবস্থান সম্পর্কে শত্রুর চোখে ধুলো দিতেও এর প্রয়োগ করা যায়। সূত্র: ওয়াশিংটন এক্সামিনার।