গণপরিবহনে ৬০ শতাংশ ভাড়া বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি


করোনাকালীন সময়ের জন্য শর্তসাপেক্ষে বিদ্যমান ভাড়ার ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার। রবিবার (৩১ মে) রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে মন্ত্রণালয়ের সহকারী সচিব মো. জসীম উদ্দিনের স্বাক্ষরে এ প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, করোনাভাইরাসজনিত রোগের বিস্তার রোধে শর্তসাপেক্ষে সীমিত পরিসরে নির্দিষ্ট সংখ্যক যাত্রী নিয়ে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকল্পে সরকার আন্তজেলা ও দূরপাল্লায় চলাচলকারী বাস ও মিনিবাসের সর্বোচ্চ ভাড়া পুনর্নির্ধারণ করেছে। এক্ষেত্রে আন্তজেলা ও দূরপাল্লার বাস বা মিনিবাস চলাচলের ক্ষেত্রে বিদ্যমান ভাড়ার সঙ্গে ৬০ শতাংশ অতিরিক্ত যুক্ত হবে।

প্রজ্ঞাপনে যেসব শর্ত দেওয়া হয়েছে তা হচ্ছে, একজন যাত্রীকে বাস/মিনিবাসের পাশাপাশি দুটি আসনের একটি আসনে বসিয়ে অপর আসনটি অবশ্যই ফাঁকা রাখতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি অনুসারে শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। কোনোভাবেই সংশ্লিষ্ট মোটরযানের রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেটে উল্লেখিত মোট আসন সংখ্যার অর্ধেকের বেশি যাত্রী বহন করা যাবে না এবং দাঁড়িয়ে কোনও যাত্রী বহন করা যাবে না।

বর্ণিত প্রজ্ঞাপনে উল্লেখিত ভাড়ার বিদ্যমান হারে প্রচলিত ভাড়ার চার্টে বর্ণিত ভাড়ার সঙ্গে সরকার কর্তৃক অনুমোদিত ভাড়া বৃদ্ধির হার যোগ করে নতুন ভাড়া নির্ধারিত হবে। স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ এবং স্বাস্থ্য অধিদফতর কর্তৃক প্রদত্ত নির্দেশনা যথাযথভাবে অনুসরণ করে বাস/মিনিবাস পরিচালনা করতে হবে।

অনুমোদিত ভাড়ার হার করোনাভাইরাসজনিত সংকটকালের জন্য প্রযোজ্য হবে। এ সংকট দূর হলে প্রজ্ঞাপনে বিদ্যমান হারের ভাড়া পুনঃপ্রযোজ্য হবে। জনস্বার্থে জারিকৃত এ ভাড়ার হার ১ জুন থেকে কার্যকর হবে।