খাদ্য উৎপাদনের অনেক ক্ষেত্রে শীর্ষস্থানও অর্জন করেছে বাংলাদেশ : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, গবেষণাসহ সরকারের নানামুখী উদ্যোগে দেশ খাদ্য উৎপাদনে শুধু স্বয়ংসম্পূর্ণই নয়, অনেক ক্ষেত্রে শীর্ষস্থানও অর্জন করেছে। সমৃদ্ধ দেশ গঠনে কৃষি ও কৃষক মূল চালিকা শক্তি। স্বাবলম্বী দেশ গঠনে কৃষিই সবচেয়ে বেশি অবদান রাখছে। এদেশের উর্বর মাটিতে যেকোনো ফসল ফলানো সম্ভব।

আজ রবিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার-১৪২৪ প্রদান উপলক্ষে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। গণভবন থেকে এই অনুষ্ঠানে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে ৩২ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কার তুলে দেন কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১৯৯৮ সালে তার সরকারই প্রথম দেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করে। এরপরের সরকার দেশের কথা চিন্তা না করে লুটপাটে ব্যস্ত ছিলো। তোষামদি-খোষামদিই হয়ে ছিলো দেশের নীতি।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, পতিত জমিতে ফসল উৎপাদনের গবেষণায় সফলতা পেয়েছে বাংলাদেশ। তাই সরকার এখন শুধু খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণই নয়, মানুষের জন্য পুষ্টিও নিশ্চিত করতে চায়। এই ব-দ্বীপের ভবিষ্যত প্রজন্মকে নিরাপদ রাখতে তার সরকার ডেল্টা প্ল্যান নিয়ে তা বাস্তবায়ন শুরু করেছে।

করোনাকালে সরকার ৫ কোটি মানুষকে সহায়তা দিয়েছে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় সবাইকে সাবধান থাকতে হবে। মানতে হবে স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি।