করোনাভাইরাস: বাংলাদেশে ‘সরকারি ছুটি’ বাড়লো ১১ দিন,সন্ধ্যা ছয়টার পর বাড়ির বাইরে যাওয়া নিষিদ্ধ

ঢাকার ব্যস্ত এলাকাগুলো এখন একেবারে ফাঁকা

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সাধারণ ছুটি বাড়িয়ে আগামী ২৫ শে এপ্রিল পর্যন্ত করা হয়েছে। এখন থেকে ২৫ শে এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি চলাকালীন সন্ধ্যা ছয়টার পরে বাড়ি থেকে কেউ বের হতে পারবেনা বলে নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

সন্ধ্যা ৬টার পর কেউ ঘরের বাইরে গেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

আজ শুক্রবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এ প্রজ্ঞাপন জারি করে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হচ্ছে “সাধারণ ছুটির সাথে আগামী ১৭ ও ১৮ এপ্রিল এবং ২৪ ও ২৫ এপ্রিল ২০২০ তারিখের সাপ্তাহিক ছুটিও সংযুক্ত থাকবে”।

প্রথমে ২৬শে মার্চ থেকে ৪ঠা এপ্রিল এই সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়। এরপর এনিয়ে তিন দফা এই ছুটি বাড়ানো হল।

তবে জরুরি পরিসেবার ক্ষেত্রে এ ব্যবস্থা প্রযোজ্য হবে না। আর ছুটিকালীন বাংলাদেশ ব্যাংক সীমিত আকারে ব্যাংকিং ব্যবস্থা চালু রাখার প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করবে।

এপ্রিল মাসের শুরু থেকেই বাংলাদেশে করোনাভাইরাস শনাক্ত রোগীর সংখ্যাও বাড়তে শুরু করেছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বাংলাদেশের জন্য করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এপ্রিল মাসটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

একদিকে যেমন সামাজিক সংক্রমণ দেখা দিতে শুরু করেছে, তেমনি সেটা ঠেকিয়ে রাখার জন্য ছুটি এবং লকডাউনসহ নানা পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার।

জেলা প্রশাসকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের সময় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন করোনাভাইরোসের সংক্রমণ ঠেকাতে এপ্রিল মাস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

তখন তিনি বলেন, “করোনাভাইরাস বিশ্বব্যাপী প্রলয় সৃষ্টি করেছে। সারাবিশ্বে যেভাবে করোনা রোগী বৃদ্ধি পেয়েছে, আমাদের এখানেও বৃদ্ধি পাওয়ার একটা ট্রেন্ড আছে। তাতে আমাদের সময়টা এসে গেছে, এপ্রিল মাসটা। এই সময় আমাদের খুব সাবধানে থাকতে হবে।”