করোনাভাইরাস ; ফের চীনে প্রতিনিধি দল পাঠাতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার উদ্যোগ

সারা বিশ্বে মহামারী করোনাভাইরাসের সংক্রমণে প্রাণ হারিয়েছেন ৪০ লাখের বেশি মানুষ। এই মুহূর্তে করোনার সঙ্গে লড়ছেন প্রায় দেড় কোটি মানুষ। তবে এ করোনার উৎপত্তি নিয়ে এখনো রয়ে গেছে ধোঁয়াশা। চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। করোনা ছড়িয়ে পড়ার এক বছর পর চলতি বছরের জানুয়ারিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি দল উহান পরিদর্শন করেছিলেন। তবে চীনের ল্যাবরেটরি থেকে করোনা ছড়ানোর গুজবের সত্যতা পাননি তারা। তবে ওই প্রতিনিধি দলের বিশ্লেষণের বিষয়ে অনেকেই অনাস্থা প্রকাশ করেছিলেন।

এবার ফের চীনের ল্যাবরেটরিগুলো পরিদর্শন করতে চায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। গতকাল শুক্রবার সংস্থার প্রধান তেদরোস আধানোম গেব্রেয়াসুস চীনে দ্বিতীয় ধাপে তদন্ত নিয়ে সংস্থাটির সদস্যদের সঙ্গে একটি বৈঠক করেন। সেখানে তিনি পরের ধাপে তদন্তে পাঁচটি বিষয় অগ্রাধিকার দেওয়া প্রস্তাব করেন। উহানের সংশ্লিষ্ট ল্যাবরেটরি এবং গবেষণা প্রতিষ্ঠানগুলো পরিদর্শন করতে চায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তদন্তে এসব এলাকাকে প্রাধান্য দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া উহান ও এর আশপাশের পশুপাখির বাজারগুলোয় গবেষণা চালাতে বলা হয়েছে।

চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে উহানে চার সপ্তাহ অবস্থান করে ডব্লিউএইচওর একটি তদন্তকারী দল। পরে মার্চে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে তারা জানায়, ভাইরাসটি সম্ভবত বাদুড় থেকে অন্য পশুপাখির মাধ্যমে মানুষের শরীরে এসেছে।