এই কর্তৃত্ববাদী সরকার আর বেশি দিন নেই : দুদু

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও কৃষকদলের আহ্বায়ক শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, দে‌শের জনগণই কোনো না কোনো ভাবে এই কর্তৃত্ববাদী শাসককে উচ্ছেদ করবে। সেটা খুব বেশি দেরি হবে- তা আমার কাছে মনে হয় না। বাংলাদেশের মানুষ গণতন্ত্রপ্রিয়। বাংলাদেশের মানুষ স্বাধীনচেতা। ব্রিটিশের কর্তৃত্ব তারা মানে নাই। পাকিস্তানের কর্তৃত্ব তারা মনে নাই। এখন যদি কোনো শাসক মনে করে গায়ের জোরে, পুলিশ দিয়ে জনগণকে দমিয়ে রাখবে সেটাও সম্ভব হবে না।

আজ বুধবার (২৫ ন‌ভেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লা‌বে জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে করোনা প্রতি‌রোধে জনস‌চেতনতা ও স্বাস্থ‌্যসেবা কর্মসূ‌চি‌তে তি‌নি এসব কথা ব‌লেন।

দুদু বলেন, আওয়ামী লীগ ও নির্বাচন কমিশনের একটাই উদ্দেশ্য, বিএনপিকে কীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করবে, নিশ্চিহ্ন করবে, হেয় প্রতিপন্ন করবে এবং বাংলাদেশ থেকে বিতাড়িত করবে। ত‌বে দে‌শের মানুষ গণতন্ত্র চায়। মানুষ স্বাধীনচেতা। গা‌য়ের জো‌রে জনগণকে দ‌মি‌য়ে রাখা যা‌বে না।

তিনি বলেন, সরকার করোনায় সচেতনতামূলক কতটুকু সেবা দিয়েছে বা কাজ করেছে আমার জানা নাই। কারণ টেলিভিশন ও পত্রিকার বাইরে এ ভয়াবহ করোনায় সরকারের উদ্যোগ শুধু মুখে মুখে আছে, বাস্তবতায় এর তেমন একটা দেখা যায় নাই।

বিএনপির এই শীর্ষস্থানীয় নেতা বলেন, ‘দেশের কৃষক, শ্রমিক, মেহনতি মানুষ নানাভাবে আজকে ক্ষতিগ্রস্ত, নানাভাবে পদস্থ। সেই জায়গায় সরকারের যে ভূমিকা থাকার কথা ছিল সেই ভূমিকা যত স্বল্পই হোক জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশন পালন করছে। তারা মানুষের সেবা দিচ্ছে সচেতনতার উদ্যোগ নিচ্ছে। আর সরকার বাস্তবতার বাইরে গিয়ে শুধু মুখে মুখে মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে।

জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ডা. ফরহাদ হালিম ডোনারের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ও আহ্বায়ক ডা. পারভেজ রেজা কাকনের সভাপতিত্বে ও কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীমের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, খায়রুল কবির খোকন ও ডা. এরফানুল হক সিদ্দিকী প্রমুখ।