ঈদবাজারে উপচে পড়া ভিড়, স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে কেনাকাটার ধুম

নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলায় লকডাউন উপেক্ষা করে চলছে ঈদবাজার। স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে দোকানপাটে চলছে কেনাকাটার ধুম। এতে ব্যবসায়ীরা দারুণ খুশি। তবে করোনার ঝুঁকি বাড়ছে বলে মনে করেছে সচেতনমহল।

পূর্বধলা সদর বাজারে দেখা গেছে, প্রতিটি দোকানপাটে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলছে বেচাকেনা। বিশেষ করে কাপড়, তৈরি পোশাক, জুতা ও প্রসাধনীর দোকানগুলোতে বেশি ভিড় দেখা গেছে। এসব দোকানে নারী-শিশু ক্রেতার সংখ্যা বেশি। তা ছাড়া নিত্যপণ্যের দোকানে প্রচুর বেচাকেনা হচ্ছে। কোনো দোকানপাটেই সামাজিক দূরত্বের কোনো বালাই নেই। ভিড় ঠেলে গাদাগাদি করে ক্রেতারা কেনাকাটা করছেন।

দোকানদাররা জানান, শিশুদের তৈরি পোশাক, জুতা ও প্রসাধনীসামগ্রী কেনাকাটা বেশি হচ্ছে। এতে তারা করোনার ক্ষতি কিছুটা হলেও পুষিয়ে নিতে পারবেন বলে আশা করছেন।

অপর দিকে পোশাক তৈরির কারিগররা (টেইলার্স) কাপড় তৈরিতে ব্যস্ত সময় পাড় করছেন। তারা গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী কাপড় তৈরি করেছেন। প্রতিটি দোকানে সেলাই মেশিনের খটখট শব্দ শোনা যাচ্ছে। কাপড় কাটা ও সেলাই দিচ্ছেন।

পূর্বধলা বাজারে মামুন গার্মেন্টস নামীয় তৈরি পোশাক বিক্রির দোকান মালিক মামুন মিয়া, মুন্না গার্মেন্টসের মালিক আব্দুল মোমেন জানান, প্রচুর বেচাকেনা হচ্ছে। ফলে তারা সন্তুষ্ট। এতে করোনার ক্ষতি কিছুটা হলেও পুষিয়ে নিতে পারবেন বলে তারা আশা করছেন। সামাজিক দূরত্ব না মানার বিষয়ে জানতে চাইলে তারা জানান, স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব রক্ষা করতে আমরা চেষ্টা করছি।

লেখক গকেষক আলী আহাম্মদ খান আইয়োব বলেন, দোকানে যেভাবে মানুষের ভিড় দেখছি তাতে স্বাস্থ্যবিধি রক্ষা করার কোনো সুযোগ নেই। এতে আগামী দিনে করোনা ঝুঁকি বাড়বে বলে মনে হচ্ছে।