ইন্দোনেশিয়ায় ৬২ যাত্রী নিয়ে বিমান বিধ্বস্ত, সবার মৃত্যুর শঙ্কা

ইন্দোনেশিয়ায় ৬২ জন যাত্রী নিয়ে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় আরোহীদের বেঁচে থাকার সম্ভবনা নেই বলে মনে করছে কর্তৃপক্ষ।  ইন্দোনেশিয়ার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এরই মধ্যে বিমান বিধ্বস্তের স্থান খুঁজে পাওয়া গেছে।

তবে তাদের ধারণা, বোয়িং ৭৩৭ বিমানটি উড্ডয়নের চার মিনিটের মধ্যেই সাগরে বিধ্বস্ত হয়েছে। এজন্য বিমানের কোনো যাত্রীর বেঁচে থাকার সম্ভবনা নেই।

সে দেশের পরিবহনমন্ত্রী বুড়ি কারিয়া সুমাদি বলেছেন, দুর্ঘটনার সম্ভাব্য স্থান চিহ্নিত করার পর ব্যাপক অনুসন্ধানের কাজ শুরু করা হয়েছে। বিমানের টুকরোগুলো ল্যাঙ্কাং দ্বীপ এবং লাকি দ্বীপের মাঝখান থেকে খুঁজে পেয়েছে অনুসন্ধান এবং উদ্ধারকারী দলের সদস্যরা।

গতকাল স্থানীয় সময় শনিবার জাকার্তা থেকে ওই বিমান উড্ডয়ন করেছিল। পরে তা নিখোঁজ হয়ে যায়। বিমানটির সঙ্গে কন্ট্রোল রুম থেকেও যোগাযোগ করা যায়নি।

জানা গেছে, জাকার্তা থেকে পশ্চিমাঞ্চলীয় কালিমানতান প্রদেশের পোন্তিয়ানাক শহরের দিকে যাচ্ছিল বিমানটি। বিমানে ৬২ জন আরোহী ছিল। দুর্ঘটনাস্থলে ১০টির বেশি জাহাজ মোতায়েন করা হয়েছে।

এছাড়া দুর্ঘটনাস্থলের আশে-পাশে পাওয়া ধ্বংসাবশেষ খতিয়ে দেখছেন তদন্ত কর্মকর্তারা। এগুলো আসলেই ওই বিমানের ধ্বংসাবশেষ কি না সেটাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সূত্র: গার্ডিয়ান