আওয়ামী লীগের রাজনীতি গ্রাম্য মোড়লদের মতো : ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী লীগ স্বাধীনতার পর থেকেই বর্ণচোরা রাজনীতি করে আসছে। তারা মুখে বলে এক কথা আর কাজ করে আরেক। মুখে গণতন্ত্রের কথা বললেও তারা গণতন্ত্রকে ধ্বংস করছে। দেশে যে অনিশ্চয়তা ,অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি হয়েছে তা আওয়ামী লীগের জন্যই। গণতন্ত্রের কথা বলে তারা একদলীয় শাষণ ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করেছিল, এখনও সেটাই করছে।

আজ বুধবার বিকেলে (সাড়ে ৪টা) ঠাকুরগাঁওয়ে তার নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সাল আমিনসহ বিএনপির বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সম্প্রতি ভাস্কর্য ইস্যুতে উসকানিদাতা হিসেবে তার বিরুদ্ধে যে মামলা হয়েছে সে বিষয়ে ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগের রাজনীতি গ্রাম্য মোড়লদের মতো, বিরোধীদলের নেতা নেতৃদের সবসময় মামলার মধ্যে রেখে ক্ষমতায় টিকে থাকার চেষ্টা করা। এ ধরণের মিথ্যা মামলাগুলোই প্রমাণ করে আওয়ামী লীগ দেশের গণতন্ত্রকে কিভাবে হত্যা করছে এবং বিরোধীদলকে নিশ্চিহ্ন করার পরিকল্পনা করছে। স্বৈরশাষকরা যখন আসে তখন জনগণের শক্তি দিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে অনেক সময় লাগে। বর্তমানে স্বৈরশাষকদের অবসান ঘটাতে জনগণ প্রস্তুত হয়েছে বড়রকমের আন্দোলনে যেতে।

আওয়ামী লীগের বিভিন্ন সমালোচনা করে তিনি আরো বলেন, দেশে মাঠের রাজনীতি করার গণতান্ত্রিক কোনো পরিবেশ নেই, তারপরও বিএনপি সভা সমাবেশ মিছিল ও মানববন্ধন করে আন্দোলন করছে আর এভাবেই আন্দোলন তৈরি হয়। গণতান্ত্রিক দলগুলোকে যখন কাজ করতে দেয়া হয় না তখনই উগ্রবাদের উত্থান ঘটে এবং সেটাই আওয়ামী লীগ করছে জেনে শুনে।